কয়েল ছাড়াই মশার আক্রমণ থেকে বাঁচুন

কয়েল দিয়ে মশা তাড়ানো যায় কথাটি ঠিক, তার প্রমাণ আমাদের সবার মাঝেই আছে। কারণ আমরা দেখতে পাই কয়েল জ্বালালে মশা থাকে না। কিন্তু আমরা কি জানি বিশ্বের সবথেকে বড় বিশেষজ্ঞদের মতে, একটি মশার কয়েল যে পরিমাণ ক্ষতি করে, ১০০ টি সিগারেট ঠিক সেই পরিমাণ ক্ষতি করে। সুতরাং আপনি বুঝতেই পারছেন টাকা খরচ করে আপনার এবং আপনার পরিবারের সবার স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলছেন।

তাহলে এবার প্রশ্ন হল কিভাবে কয়েল ছাড়া মশা তাড়ানো যায়? চলুন দেখে নেয়া যাক কয়েল ছাড়া কিভাবে মশা তাড়ানো সম্ভব।

কয়েল ছাড়া বিভিন্নভাবে মশা তাড়ানো সম্ভব

  1. লেবু – লবঙ্গ
  2. কর্পূর
  3. নিম তেল
  4. রসুন কোয়া
  5. তুলসী গাছ

লেবু – লবঙ্গ

লেবু এবং লবঙ্গ দিয়ে মশা তাড়ানো সম্ভব। এটা আপনাদের কাছে অনেকটা অবিশ্বাস্য মনে হলেও এটা প্রমাণিত। এক টুকরো লেবু কেটে লেবুর মাঝখানে লবঙ্গটি গেথে দিন তারপর বাকিটা নিজেই দেখে নিন।

কর্পূর

কর্পুর দিয়ে অসম্ভব রকম মশা তাড়ানো সম্ভব। কর্পূরের গন্ধ মশা সহ্য করতে পারে না। এটি খুবই সহজ একটি পদ্ধতি কর্পূরের ছোট্ট একটি টুকরো একটি বাটিতে রেখে বাটিটি পানিতে পূর্ণ করে দিন। কিছুক্ষণ পর নিজেই উপলব্ধি করতে পারবেন যে মশা আর নেই।

নিম তেল

নিম তেলের গন্ধ সহ্য করতে পারে না। আপনি আপনার শরীরে নিমের তেল মেখে নিন দেখবেন শরীরে মশা বসবে না। তাছাড়াও নিমের পাতাসহ ডাল কেটে ঘরের এক কোণে রেখে দিন মশার উপদ্রব কম উপলব্ধি করতে পারবেন।

রসুন কোয়া

রসুনের কোয়া দিয়ে মশা তাড়ানোর পদ্ধতি খুবই সহজ। আপনি চাইলে এখনই এটি ব্যবহার করতে পারেন। একটি রসুনের কয়েকটি কোয়া নিয়ে পানিতে ভালো করে সিদ্ধ করুন সিদ্ধ পানি ঘরের কোনায় কোনায় ছিটিয়ে দিন তাহলেই দেখবেন মশার উপদ্রব অনেকটা কমে যাবে।

তুলসী গাছ

তুলসী গাছের অনেক উপকারিতা। তুলসী গাছের আশেপাশে মশা থাকতে পারে না। আপনি চাইলে আপনার বাসার আশেপাশে কিছু তুলসী গাছ লাগাতে পারেন। তাহলে আর তেমন মশার উপদ্রব থাকবে না।

কাছি

কাছি অর্থাৎ দড়ি। পাট তৈরিকৃত মোটা দড়ি এই দড়ি ছোট ছোট করে কেটে এক কোনায় হালকা একটু পুড়িয়ে দিন তারপর দেখুন ম্যাজিক। পোড়া ধোঁয়ায় মশা আর থাকবে না। এই পদ্ধতিটি প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে ব্যবহার করা হয়।


পোস্টটি পড়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ

সুরক্ষা: করোনাকালীন সময়ে অবশ্যই পার্সোনাল প্রটেক্টিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) পরিধান করুন।

Newsletter Updates

Enter your email address below to subscribe to our newsletter

Leave a Reply